ঢাকারবিবার , ৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বজ্রপাতে মৃত্যু কমাতে বজ্রপাত পূর্বাভাস ব্যবস্থা উন্নতির পরামর্শ  

নিউজরুম বিডি ২৪
সেপ্টেম্বর ৫, ২০২১ ৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ
পঠিত: 4 বার
Link Copied!

 

বজ্রপাতে মৃত্যু কমাতে বজ্রপাত পূর্বাভাস ব্যবস্থা উন্নতির পরামর্শ

 

দেশে বজ্রপাতে মৃত্যু কমাতে শক্তিশালী রাডার ও স্যাটেলাইট নেটওয়ার্কের মাধ্যমে বজ্রপাতের পূর্বাভাসের ব্যবস্থার উন্নতির পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় কর্তৃক আয়োজিত ‘বজ্রপাত’ বিষয়ক জাতীয় সেমিনারে বিশেষজ্ঞরা এই পরামর্শ দেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমান। প্রতিমন্ত্রী বলেন, বজ্রপাতের মতো দুর্যোগে মৃত্যুহার কমিয়ে আনতে সরকার কাজ করছে।

 

দেশবাসীকে আগাম সতর্কবার্তা দিতে দেশের আটটি স্থানে পরীক্ষামূলকভাবে বজ্রপাত চিহ্নিতকরণ যন্ত্র বা লাইটনিং ডিটেকটিভ সেন্সর স্থাপন করা হয়েছে। এ’টি সফল হলে জনসমাগম হয় এমন আরও বেশিসংখ্যক স্থানে লাইটনিং এরেস্টার বা বজ্র নিরোধক দণ্ড স্থাপন করা হবে।
বজ্রপাতে যেখানে মৃত্যুর হার বেশি সেসব অঞ্চলে বজ্রপাত আশ্রয় কেন্দ্র স্থাপনের লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার।

 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে ২০১৫ সাল থেকে বজ্রপাতকে দুর্যোগ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) এ টি এম আব্দুল ওয়াহ্হাব। এছাড়াও সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স বিভাগ, আবহাওয়া অধিদপ্তর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগের শিক্ষকরা এবং বেসরকারি সংস্থার কর্মকর্তারা সেমিনারে অংশ নেন।

 

মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহসীন বলেন, দুর্যোগে ঝুঁকি কমাতে জীবন ও সম্পদের সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি কমিয়ে দুর্যোগ সহনীয়, টেকসই ও নিরাপদ দেশ গড়ার লক্ষ্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় পরিকল্পিতভাবে কাঠামোগত ও অবকাঠামোগত কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে, যা ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি উচ্চ আয়ের উন্নত দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে সহায়ক হবে।

 

 

ads
adv
adv
ads

x