ঢাকাশুক্রবার, ২৮শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, বিকাল ৩:২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

শায়েস্তাগঞ্জ ভূমি অফিসে নানা সংকট ভোগান্তি

লিটন পাঠান, সিলেট প্রতিনিধি ।
সেপ্টেম্বর ২, ২০২১ ৮:২৬ অপরাহ্ণ
পঠিত: 50 বার
Link Copied!

 

শায়েস্তাগঞ্জ ভূমি অফিসে নানা সংকট ভোগান্তি

সার্ভার ডাউন আর পর্যাপ্ত লোকবলের অভাবে কাজে গতি আনা যাচ্ছে না এমন কিছু সমস্যা বিদ্যমান থাকলেও নতুন ভবন নির্মাণের প্রায় দুই বছর পর ওই অফিসে কাজ শুরু হওয়ায় সেবা নিতে আসা গ্রাহকদের ভোগান্তি অনেকটা কমেছে। ঠিকাদারের নানা টালবাহানার পর অবশেষে শুরু হয়েছে রাজিউড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের নতুন ভবনের কার্যক্রম।

 

বিগত কয়েকমাস ধরে কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ওই অফিসের নতুন ভবনে কার্যক্রম শুরু হলেও এখনো হয়নি এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন। সব মিলিয়ে সেবাগ্রহিতাদের ভোগান্তি কিছুটা কমলেও এখনও আরও নানা সমস্যা বিদ্যমান।

 

জানা গেছে- রাজিউড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসটি হবিগঞ্জ সদর উপজেলার অন্তর্ভুক্ত থাকলেও এটি শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার নুরপুর ইউনিয়নের সুতাং বাজারে অবস্থিত হওয়ায় এর কার্যক্রম নিয়ন্ত্রিত হয় শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা থেকেই। এর আগে দীর্ঘদিন রাজিউড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের কাজ বাজারের ওমেন্স কর্ণারে চলে আসছিল। এতে ছিল নানা ভোগান্তি।

 

বিষয়টি নিয়ে একাধিক বার গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে অবশেষে কর্তৃপক্ষের টনক নড়ে। একপর্যায়ে শুরু হয় ভূমি অফিসের নতুন ভবন নির্মাণ কাজ। সেই কাজ শেষে কিছুদিন পড়ে থাকা অবস্থায় বিরতি দিয়ে যে ভবনটি এখন কর্মমুখোর এর মাঝেও দেখলে মনে হয় সব আছে তবুও অগোছালো।

 

সরেজমিনে (২- সেপ্টেম্বর ) দুপুরে রাজিউড়া ভূমি অফিসে গেলে দেখা যায় নতুন ভবনের মূল গেটটি কেউই ব্যবহার করতে পারছে না। গেটের প্রবেশমুখেই দেয়া হয়েছে সিঁড়ি। এ অবস্থায় গেটটি ভেতরের মুখ দিয়ে খোলা যায় না। এতে অসুবিধা হয় গাড়ি পার্কিংয়ে। ভবনের বাম পাশে একটি মিনি গেট করা হয়েছে, যেটি দিয়ে সবাই আসা যাওয়া করছেন। সেটিও এমন ঢালাওভাবে নির্মাণ করা হয়েছে। যে কেউ পিছলে পড়ে গুরুতর আহত হতে পারেন। অথচ, সীমানার ভেতরে খালি জায়গা পতিত অবস্থায় পড়ে আছে। অফিসের কাজের ধরণ দেখলে সহজেই ঠিকাদারের অজ্ঞতার পরিচয় মেলে।

 

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এই ঠিকাদারের সাথে অনেক চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা যায়নি অন্যদিকে এখনো নতুন ভবনে সোলার সিস্টেম চালু করার কথা থাকলেও তা করেননি ঠিকাদার। এ অবস্থায়ই অফিসে সবধরণের কার্যক্রম।

 

এদিকে সারাদেশের ন্যায় রাজিউড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসেও জমির দলিলপত্র অনলাইনে তালিকাভুক্তির কাজ চলছে। তবে, সার্ভার ডাউন আর পর্যাপ্ত লোকবলের অভাবে কাজে গতি আনা যাচ্ছে না। এমন কিছু সমস্যা বিদ্যমান থাকলেও নতুন ভবন নির্মাণের প্রায় দুই বছর পর ওই অফিসে কাজ শুরু হওয়ায় সেবা নিতে আসা গ্রাহকদের ভোগান্তি অনেকটা কমেছে। সাধারণ সেবা গ্রহীতারা সেই ওমেন্স কর্ণারে উন্মুক্তভাবে সেবা নেয়ার চেয়ে নতুন ভবনের কার্যক্রমকে মন্দের ভালো হিসেবেই দেখছেন।

 

সার্বিক বিষয়ে রাজিউড়া ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী ভূমি কর্মকর্তা মো. আজাদ মিয়ার সাথে কথা বললে তিনি বলেন- ‘গত রমজান থেকে আমরা নতুন ভবনে আসছি। এখানেই এখন সব ধরণের কাজ চলছে। এই নতুন ভবনে কিছুটা সমস্যা রয়েছে, যেগুলো সমাধান করলে গ্রাহকরা আরো নির্বিঘ্নে সেবা নিতে পারবেন। এই অফিসে দুজন লোকবলের অভাব রয়েছে যার কারণে আমাদের কাজের চাপ অনেক বেশি।’

 

নতুন ভবন আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হবে কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন- এটা কর্তৃপক্ষ বলতে পারবে এই বিষয়ে শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিনহাজুল ইসলাম জানান- ‘করোনার প্রভাবে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ইউনিয়ন ভূমি অফিসটি উদ্বোধন করা হয়নি। আমি শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় আসার আগেই ইউনিয়ন ভূমি অফিসটির কাজ শেষ হয়েছিল। আমি জেনেছি এ ভবনের নির্মাণে কিছুটা ত্রুটি ছিল, যার কারণে কিছুটা সমস্যা রয়েছে তবুও আমি এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে দেখব।