ঢাকাশুক্রবার, ২৮শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, দুপুর ২:১০
আজকের সর্বশেষ সবখবর

স্বাস্থ্যিবিধি উপেক্ষা করে শিমুলিয়া ফেরিঘাটে উপচেপড়া ভিড়।

মোঃ ইমদাদুল হক। (ডেস্ক ঢাকা)
জুলাই ২৮, ২০২১ ২:৫৯ অপরাহ্ণ
পঠিত: 100 বার
Link Copied!

 

কঠোর বিধিনিষেধ উপেক্ষা করে শিমুলিয়া নৌরুটে ফেরিগুলোতে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড় ও ব্যক্তিগত গাড়ি পারাপার হচ্ছে।

 

তাদের অধিকাংশই স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। আজ বুধবার কঠোর বিধি-নিষেধের পঞ্চম দিনে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটের ফেরিগুলোতে সকাল থেকে ঢাকামুখী যাত্রীর উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে।

বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যাত্রীর চাপ কিছুটা কমতে থাকে। যাত্রীদের বাংলাবাজার ঘাট হয়ে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে ফেরিতে গাদাগাদি করে পদ্মা পার হয়ে শিমুলিয়া ঘাটে আসতে দেখা গেছে।

 

যাত্রীরা ছোট ছোট যানবাহন ব্যাটারী চালিত আটোরিক্সা প্রাইভেটকার ও মটরসাইকেলে করে ভেঙ্গে ভেঙ্গে পায়ে হেটে ঢাকার উদ্দেশ্যে কর্মস্থলের দিকে ছুটছে।

যাত্রীরা জানান, মহাসড়ক দিয়ে পায়ে হেটে মোটরসাইকেল, অটোরিকশা, থ্রি-হুইলারসহ বিভিন্ন যানবাহনে ভেঙে ভেঙে বাংলাবাজার ঘাট হয়ে ফেরিতে শিমুলিয়া ঘাটে আসেন।

 

এক্ষেত্রে তাদেরকে পথে পথে পুলিশের বাধা মোকাবেলা করতে হয়েছে।এদিকে শিমুলিয়া ঘাটে দক্ষিণবঙ্গ মুখী যাত্রীর চাপ দেখা যায়নি।লকডাউনের প্রথম দিন থেকে এ নৌপথে সকল লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকায় ও অল্প সংখ্যক ফেরি চলাচল করায় ফেরিতে যাত্রীর গাদাগাদি লক্ষ্য করা গেছে।

 

শিমুলিয়া ঘাটের পার্কিং ইয়ার্ডগুলো শূণ্য। কোন ধরনের যানবাহন নেই।বিআইডাব্লিউটিসি ঘাট কর্মকর্তারা জানান। জরুরি সেবার আওতায় পণ্যবাহী পরিবহন, অ্যাম্বুলেন্স ঘাটে আসলেই পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে ফেরিতে।

 

বিআইডব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক(বাণিজ্য) মো. মাহবুব হোসেন দৈনিক ইনকিলাবকে জানান, ঘাটে যানবাহন পারাপারে অপেক্ষায় নেই।

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌরুটে ৯টা ফেরি চলাচল করছে। শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীর চাপ নেই তবে বাংলাবাজার হতে আসা ফেরিগুলোতে যাত্রীর চাপ আছে।

লৌহজং থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আলমগীর হোসাইন জানান, কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী লৌহজং উপজেলার মালিরঅংক মোড়,মাওয়া সড়কে খানবাড়ী মোড় ও শিমুলিয়া মোড়ে চেকপোস্টে বহাল রেখেছি।

 

জরুরি সেবার আওতায় সে সকল গাড়ি ছাড়া হচ্ছে। তাছাড়া সকল গাড়ি ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

 

নিউজরুম বিডি২৪।