ঢাকাবুধবার, ২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৮:০২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ইন্দোনেশিয়ায় করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতি বাড়ি বাড়ি পড়ে আছে লাশ।

মামুন অর রশিদ (ডেস্ক ঢাকা)।
জুলাই ১৬, ২০২১ ৫:৩৮ অপরাহ্ণ
পঠিত: 64 বার
Link Copied!

 

ইন্দোনেশিয়ায় করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতি বাড়ি বাড়ি পড়ে আছে লাশ।

 

ইন্দোনেশিয়ায় বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ রুপ ধারণ করেছে। বর্তমানে করোনা সংক্রমণের হার বিগত অন্য সময় থেকে বহুগুন বেশি। প্রতিদিন প্রায় ৪০ হাজারেরও বেশি মানুষ নতুন করে আক্রান্ত হচ্ছে। এ পর্যন্ত মোট আক্রান্ত ২৬ লাখ ছাড়িয়েছে। এবং করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ৬৯ হাজার। অতি সংক্রামক ডেল্টা ভেরিয়েন্ট এর কারণে ইন্দোনেশিয়া করোনা পরিস্থিতি এখন মহা বিপর্যয়ের দিকে। মৃত্যুপুরীতে পরিণত হচ্ছে ইন্দোনেশিয়া সৎকারের অভাবে বাড়ি বাড়ি পড়ে থাকছে লাশ। প্রতিবেশীরা পুলিশকে খবর দিয়ে সৎকারের ব্যবস্থা করছে।

 

ফাইল ছবি।

ADVERTISEMENT

দেশটির দমকল বাহিনী এখন আগুন নিভানোর পরিবর্তে লাশ সৎকারের কাজ করছে। দমকল বাহিনীর কর্মীরা জানায়, বেশিরভাগ মানুষ ঘরে থেকে ই মারা যাচ্ছেন এর কারণ হয়তো তারা প্রাথমিক চিকিৎসা পাচ্ছে না অথবা হাসপাতাল থেকে তাদেরকে ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে।

দেশটির জাভা দ্বীপে আক্রান্তের হার সবচেয়ে বেশি।

ইন্দোনেশিয়ার একটি পরিসংখ্যান গ্রুপ ল্যাপোর কোভিড-১৯ বলছে, জুন মাস থেকে এখন পর্যন্ত ৪৫০ জন তাদের বাড়িতে মারা গেছেন। করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর তারা সেলফ-আইসোলেশনে ছিলেন, কারণ হাসপাতালগুলোতে রোগী ভর্তি করানোর জায়গা ছিল না।

বিভিন্ন হাসপাতালে অক্সিজেন সংকটের কারণে নতুন রোগী ভর্তি করানো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

ADVERTISEMENT

ইন্দোনেশিয়ার হসপিটাল অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব লিয়া গার্দেনিয়া পারটাকুসুমা বলেন, সাধারণত একটি হাসপাতালে এক সপ্তাহে তিন টন অক্সিজেনের প্রয়োজন হয়। কিন্তু এখন এই পরিমাণ অক্সিজেন এক দিনেই শেষ হয়ে যাচ্ছে।

ইন্দোনেশিয়ার সরকার পরিস্থিতি সামাল দিতে ব্যর্থতার অভিযোগে নানা সমালোচনার মুখে পড়েছে। কিন্তু আক্রান্ত ব্যক্তিদের সহায়তার জন্য সাধারণ মানুষ এগিয়ে আসছে।

উল্লেখ্য, ইন্দোনেশিয়ার করোনা পরিস্থিতি মে মাসের শুরুর দিকে হঠাৎ করেই ভয়াবহ আকার ধারণ করে। বিশেষজ্ঞরা ধারনা করছেন, ঈদের ছুটিতে সাধারণ জনগণের স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে চলাচল ই সংক্রমিত করছে বেশি সংখ্যক মানুষকে। সূত্র বিবিসি।

 

  • নিউজরুম বিডি২৪। 

 

 

ADVERTISEMENT
ADVERTISEMENT

x